কম তেলে বেশি চলে এমন ১০ টি মোটরসাইকেল 

Low-cost-fuel-bike-bd

যে কোন স্থানে দ্রুততার সাথে যাতায়াত করার জন্য মোটর সাইকেল সব সময়ই সেরা । যানজোটের এই নগরীতে জ্যামকে পাশ কেটে নিদিষ্ট গন্তব্য পোঁছানর জন্য দ্রুত গতির বাহনটির কোন জুড়ি নেই । প্রযুক্তির এই দুনিয়ায় দুই চাকার এই বাহনটি ও এখন সকলের জন্য প্রায়ই সস্থাই বলা চলে ,কিন্তু তেলের ব্যপারটি আসলে প্রায়ই সকলের যেন মাথা ব্যথার কারণ হয়ে যায়।  

বাংলাদেশের বাজারে বর্তমানে ভারতীয় বাইক গুলোর কম তেলে ভাল মাইলেজ দেওয়ার সুখ্যাতি আছে। হিরো, বাজাজ ও টিভিএস ব্রান্ডের মোটর বাইকে মাইলেজের প্রতি বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। দেশের বর্তমান বাজার ভাল মাইলেজ সমৃদ্ধ অর্থাৎ কম তেলে বেশি চলে এই রকম ১০ টি বাইক সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।  

1- Hero Super Splendor 

2- TVS XL 

3- Honda Livo 

4- Honda Dream 110 

5- Runner Bulet 

6- Yamaha Saluto 

7- Suzuki Hayate  

8- Bajaj Platina 

9- TVS Metro 

10- Hero HF delux 

হিরো সুপার স্প্লেন্ডার (Hero Super Splendor) ঃ  

বর্তমানে বাজারে হিরো সুপার স্প্লেন্ডার মোটরসাইকেলটির ৪টি স্ট্রোক রয়েছে, একটি সিঙ্গেল সিলিন্ডার, এবং একটি ওএইচসি ধরণের ইঞ্জিন সংযুক্ত করা হয়েছে। মোটরসাইকেলটি ১২৪.৭ সিসি ডিস্প্লেসিমেন্ট ইঞ্জিন হওয়ার কারণে অনেকে বাইকারা এই বাইকটি চালিয়ে বেশ উপবোগ করছে । এছাড়াও হিরো সুপার স্প্লেন্ডার মোটরসাইকেল টির ইঞ্জিনের সর্বচ্চ তোরকিউ হচ্ছে ১০.৩৫ এনএম এবং ৪০০০ আরপিএম এবং ইঞ্জিনের সর্বচ্চ পাওয়ার হচ্ছে ৯.১২ পিএস এবং ৭০০০ আরপিএম । হিরো সুপার স্প্লেন্ডার মোটরসাইকেলটির স্পিড খুব একটা বেশি না হলেও এটি মাইলিয়েজের দিক থেকে বেশ ভাল,কারণ এর ইঞ্জিনে আরো সংযুক্ত করা হয়েছে একটি এ এম আই ধরণের ইগনিশন সিস্টেম যা বাইকটিকে দ্রুত চলার জন্য আরো তরান্বিত করবে। হিরো সুপার স্প্লেন্ডার আপনাকে প্রতি ঘন্টায় সর্বোচ্চ ৮০ কিলোমিটার পর্যন্ত নিয়ে যেতে সক্ষম। এছাড়াও এই মোটরসাইকেলটি প্রতি লিটারে এটি ৭০ কিলোমিটার পর্যন্ত যেতে সক্ষম। এর দাম বর্তমানে ৯৫ হাজার টাকা।  

টি.বি.এস এক্স.এল (TVS XL) ঃ  

বাংলাদেশের বাজারে বর্তমানে টি.বি.এস এক্স.এল সিরেজের ৩টি সিরিজ পাওয়া যাচ্ছে ।আর এদের মধ্য TVs XL 100 Comfort,TVs XL 100 I-touch,TVs XL 100 বাইকগুলো সেরা মাইলেজ দেওয়ার ব্যপারে বেশ প্রসংনীয় । এই মোটরসাইকেলটি প্রতি লিটারে এটি ৬০ কিলোমিটার পর্যন্ত যেতে সক্ষম। এর দাম বর্তমানে ৯২ হাজার টাকা।  

হোন্ডা লিভো (Honda Livo) ঃ 

হোন্ডা কোম্পানীর Honda Livo 110 হচ্ছে কম তেলে বেশী চলে এমন মোটরসাইকেল গুলোর মধ্য একটি যা একজন বাইকারকে ৬০ মাইলেজ পজন্ত দিতে সক্ষম । বাংলাদেশের বাজারে বর্তমানে ১,৩১,০০০ টাকা । Honda Livo 110 এবং Honda Livo 110 Disc এই দুইটি ভার্সন আমাদের দেশে রয়েছে।  

হোন্ডা ড্রিম ১১০ (Honda Dream 110) ঃ 

হোন্ডা কোম্পানীর Honda Dream 110 হচ্ছে কম তেলে বেশী চলে এমন মোটরসাইকেল গুলোর মধ্য একটি যা একজন বাইকারকে ৬০ মাইলেজ পজন্ত দিতে সক্ষম । বাংলাদেশের বাজারে বর্তমানে ১,০৫,০০০ টাকা ।  

রানার বুলেট (Runner Bullet):  
রানার অটোমোবাইলস লিমিটেড বাইকপ্রেমিদের আস্থা অর্জন করতে দেশীয় বাজারে নিয়ে এসেছে রানার বুলেট। এই মোট্রসাইকেলে রয়েছে ১০০.৫৪ সিসি ডিস্প্লেসিমেন্ট ইঞ্জিন তার সাথে আছে একটি সিঙ্গেল সিলিন্ডার ৪টি স্ট্রোক, একটি এয়ার কোল্ড এবং পেট্রোল ইঞ্জিন। রানার বাইকটি একজন বাইকারকে প্রতি লিটারে ৫০ মাইলেজ দিচ্ছে । রানার বাইকটির  সামনে ডিস্ক ব্রেক এবং পেছনে ড্রাম ধরণের ব্রেক রয়েছে। বাইকটির দাম ৯৫ হাজার টাকা। 

ইয়ামাহা স্যালুটো (Yamaha Saluto) ঃ 

ইয়ামাহা কোম্পানীর Yamaha Saluto বর্তমানে দেশীয় বাইকারদের কাছে অন্যতম প্রিয় একটি বাইক যা একজন বাইকারকে প্রতি লিটারে ৬০ মাইলেজ দিচ্ছে । বাংলাদেশের বাজারে বর্তমানে ১,৪০,০০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে ।  

সুজুকি হায়াতে (Suzuki Hayate)ঃ 

দেশীয় বাইকারদের মধ্য অন্যতম আর একটি প্রিয় বাইক হচ্ছে Suzuki Hayate বাইকটি যা একজন বাইকারকে প্রতি লিটারে ৫৫ মাইলেজ দিচ্ছে । বাংলাদেশের বাজারে বর্তমানে ১,০০,০০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে ।  

বাজাজ প্লাটিনা (Bajaj Platina):

 বাজাজ মোটরসাইকেল কোম্পানির মোটরসাইকেলের মধ্যে বাজাজের প্লাটিনা সিরিজের মোটরসাইকেলগুলো বেশ ব্যবসায় সফল এবং জনপ্রিয় হচ্ছে দিনে দিনে। বাজাজ প্লাটিনা ১০০ ইএস মোটরসাইকেলটি স্পিড এবং মাইলিয়েজের দিক থেকেও বেশ ভাল কারণএটি আপনাকে প্রতি ঘন্টায় ৯০(ইন্টারনালি টেস্টেড) কিলোমিটার পর্যন্ত সর্বোচ্চ স্পিডে বাইক চালানোর সুযোগ করে দেয়। কারণ এর সর্বোচ্চ স্পিড ৯০ (ইন্টারনালি টেস্টেড) কিলোমিটার প্রতি ঘন্টায় । এছাড়াও এই মোটরসাইকেলটি প্রতি লিটারে ৯০ কিলোমিটার পর্যন্ত যেতে সক্ষম। বাংলাদেশের বাজারে বর্তমানে এর দাম ৯৬ হাজার ৯০০টাকায় বিক্রি হচ্ছে ।  

টিভিএস মেট্রো (TVs Metro): 

ভারতীয় কোম্পানীর টিভিএস মোটরসাইকেল প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান বরাবরই মাইলেজের কথা মাথায় রেখে অর্থাৎ কম তেলে বেশী চলে এই রকম মোটরসাইকেল তৈরি করে থাকে। মাইলেজের দিকে থেকে এই ব্র্যান্ডের মেট্রো গাড়িটির বেশ জনপ্রিয়তা রয়েছে। টিভিএস মেট্রোতে ব্যবহার করা হয়েছে ৯৯.৭৭ সিসির একটি ফোরস্ট্রক এয়ারকুলড ইঞ্জিন। বাইকটির টপ স্পিড প্রতি ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৮৫ কিলোমিটার। এছাড়া বাইকটির ফুয়েল ট্যাংক ক্যাপাসিটি হচ্ছে ১২ লিটার। বাইকটিতে আপনি প্রতি লিটারে ৭০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিতে পারবেন। বর্তমান বাজারে টিভিএস মেট্রো কিনতে হলে আপনাকে ৯০ হাজার ৯০০ টাকা খরচ করতে হবে।  

হিরো এইচএফ ডিলাক্স (Hero HF Delux):  

বাংলাদেশী বাইকারদের মধ্য হিরো এইচএফ ডিলাক্স হিরো ব্র্যান্ডের একটি মাইলেজ কিং বাইক বলা যায়। িরো এইচএফ ডিলাক্স বাইকটির রয়েছে ১০০ সিসি কমিউটিং ফোকাসড ইঞ্জিন যাতে খুব কম পাওয়ারে ভাল ফুয়েল এফেন্সি এবং টর্ক পাওয়া যায়। ইঞ্জিনটি প্রায় ৮.৩৬ পিএস পাওয়ার এবং ৮.৫এনএম টর্ক দিতে সক্ষম। হিরো এইচএফ ডিলাক্স বাইকের সর্বোচ্চ স্পিড ৯০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টাই এবং এর মাইলিয়েজ ৬০ কিলোমিটার প্রতি লিটারে। বর্তমানে সাশ্রয়ী দাম ৮৫ হাজার টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। 

সুত্র ঃ Techvilla24 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *